গ্যাস সিলিন্ডার আমদানির লাইসেন্স পাবার সহজ উপায়

সর্বশেষ আপডেট আগষ্ট ২১, ২০১৭, সোমবার

ছবিসূত্র : ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত

সেবার সংক্ষিপ্ত বিবরণ:

বাংলাদেশে গ্যাস সিলিন্ডারের চাহিদা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখন দেশের আনাচে কানাচে সর্বত্র রয়েছে গ্যাস সিলিন্ডারের চাহিদা। তবে এটি ঝুঁকিপূর্ণ হবার কারণে বিস্ফোরক অধিদপ্তরের কিছু নির্দিষ্ট নীতিমালা রয়েছে। যার ফলে লাইসেন্সে প্রাপ্তির মাধ্যমে সহজেই গ্যাস সিলিন্ডার আমদানি করা সম্ভব।

সেবার সুবিধা:

  • শুধুমাত্র লাইসেন্সপ্রাপ্তরাই গ্যাস সিলিন্ডার আমদানি করার সুযোগ পায় ।
  • বিস্ফোরক অধিদপ্তরের সরাসরি হস্থক্ষেপ থাকায় অবৈধ পন্থায় গ্যাস সিলিন্ডার আনার কোন সুযোগ নেই।
  • যেহেতু সরকারের দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যাক্তির মাধ্যমে লাইসেন্স লাভ করা যায়, সেহেতু অদক্ষ লোকের মাধ্যমে কোন প্রকার দূর্ঘটনা ঘটার সুযোগ থাকেনা।
  • গ্যাস সিলিন্ডার আমদানির লাইসেন্স থাকলে বৈধ উপায়ে উন্নত মানের গ্যাস সিলিন্ডার আমদানি সম্ভব।

প্রক্রিয়া:

লাইসেন্স প্রত্যাশী সংস্থাকে সরাসরি বিস্ফোরক সহকারী পরিদর্শক বা প্রধান পরিদর্শকের বরাবর প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ  আবেদন করতে হয়। সেখান থেকে সিলিন্ডার, নির্ধারিত স্থান এবং সবকিছু পরিদর্শন করে দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যাক্তিগণ লাইসেন্স প্রদান করেন।  

সেবার ধরন

নাগরিক সেবা

মন্ত্রণালয়

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়

বিভাগ

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ

অধিদপ্তর

বিস্ফোরক অধিদপ্তর

যোগ্যতা

যেকোন প্রত্যাশী সংস্থা

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১) সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব প্যাডে আবেদনপত্র

২) সঠিকভাবে পূরণকৃত ফরম।

৩) ইনভয়েস, বিল অফ লোডিং, প্যাকিং লিস্ট সার্টিফিকেট অব অরিজিন নির্দিষ্ট অধিপত্রে জমা দিতে হয়।

৪) আন্তর্জাতিক ভাবে চিহ্নিত নিরপেক্ষ পরিদর্শনকারীর থেকে পাওয়া সার্টিফিকেট

৫) সিলিন্ডার আমদানির লাইসেন্স ফি

প্রয়োজনীয় খরচ

১) প্রথম  ১০০টি সিলিন্ডারের জন্য ৬০০টাকা হারে জমা দিতে হবে।

২) পরবর্তী ১০০টি এবং তার অংশবিশেষ এর জন্য ৩০০ টাকা হারে ফী জমা দিতে হবে।

সেবা প্রাপ্তির সময়  

১) দরখাস্ত জমার ৩০ দিনের মধ্যে যদি সে স্থানের নকশা অনুমোদনযোগ্য হয় তাহলে সেই সময়ের মধ্যেই অনুমতি প্রদান করা হয়।

২) দ্বিতীয় ধাপে সে স্থানে সিলিন্ডার পরীক্ষা কেন্দ্র স্থাপনের নির্মাণ সম্পন্নতার রিপোর্ট পাবার পরে যথাযথ কর্তৃপক্ষ সে স্থান স্বচক্ষে পরিদর্শনের পর লাইসেন্স মঞ্জুর করেন।

আবেদনের সময়

সারা বছর

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

 প্রধান বিস্ফোরক পরিদর্শক

যোগাযোগঃ  ৯৩৪৫২৫৮

সেবা না পেলে কার কাছে যাবেন

সহকারী বিস্ফোরক পরিদর্শক

 

বিস্তারিত তথ্যের জন্য ভিজিট করুন: http://www.explosives.gov.bd

যোগাযোগের ঠিকানাঃ

বিস্ফোরক অধিদপ্তর,

সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০।