এলপি গ্যাস উৎপাদন, বিক্রি ও মজুদের জন্য লাইসেন্স করবেন যেভাবে

সর্বশেষ আপডেট আগষ্ট ২১, ২০১৭, সোমবার

ছবিসূত্র : ইন্টারনেট থেকে প্রাপ্ত

সেবার সংক্ষিপ্ত বিবরণ:

কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান যদি এলপি গ্যাস উৎপাদন,বিক্রি ও মজুদ করতে আগ্রহী হয় তাহলে তাকে সরকারীভাবে লাইসেন্স করতে হয়।এই লাইসেন্স ছাড়া এলপি গ্যাস উৎপাদন, বিক্রি ও মজুদ করা সম্পূর্ণ ভাবে বেআইনী এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলারিটি কমিশন বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য লাইসেন্স সেবা দিয়ে থাকে।

সেবার সুবিধা:

  • নিরাপদ ও ঝুঁকিহীনভাবে এলপি গ্যাস উৎপাদন, মজুদ ও বিক্রির নিশ্চয়তা থাকে।
  • প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে সরকারি সাহায্য পাওয়া যায়।

প্রক্রিয়া:

এলপি গ্যাস উৎপাদন, বিক্রিও মজুদের জন্য আবেদনকারী ব্যক্তি/ প্রতিষ্ঠানের সব দাখিল করা কাগজ বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলারেটি কমিশনের একটি মূল্যায়ন কমিটি প্রাথমিক ভাবে যাচাই বাছাই করে দেখে। কাগজপত্রে কোন ধরণের ভুল থাকলে আবেদনকারীকে লিখিতভাবে চিঠির মাধ্যমে তা যানানো হয়। আবেদনকারী আবার সেই কাগজপত্র জমা দিলে, আগের মতন সব কাগজপত্র আরেকবার পরীক্ষা করা হয়। যদি পরীক্ষাতে কোন রকম ভুল-ভ্রান্তি ধরা না পরে, তাহলে মূল্যায়ন কমিটি প্রথমে কমিশনের কমিশন সভায় সেই আবেদন সকল কাগজপত্রসহ উপস্থাপন করে। কমিশন যদি লাইসেন্স ইস্যু করতে আগ্রহী হয়, তাহলে লাইসেন্স প্রদানের জন্য স্টেকহোল্ডার, সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ এবং আবেদনকারীর সরাসরি উপস্থিতিতে উন্মুক্ত সভায় সেই সিদ্ধান্ত উপস্থাপন করে সকলের মতামতের মাধ্যমে লাইসেন্স দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।   

সেবার ধরন

নাগরিক সেবা

মন্ত্রণালয়

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়

বিভাগ

জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ

অধিদপ্তর

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলারেটি কমিশন

যোগ্যতা

এলপি গ্যাস উৎপাদন, বিক্রিও মজুদের জন্য আগ্রহী ব্যক্তি/ প্রতিষ্ঠান

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

১)সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব প্যাডে কমিশনের সচিব বরাবর ফরম চেয়ে আবেদনপত্র।

২)প্রতিসেট আবেদনপত্রের জন্য নির্ধারিত ফী ।

৩)আবেদনপত্রের সাথে ফরমে উল্লেখ করা সকল কাগজপত্র।

প্রয়োজনীয় খরচ

১)লাইসেন্সের জন্য দরখাস্তঃ ৫,০০/- টাকা ।

২)লাইসেন্স ফি: ৫,০০০/- টাকা।

সেবা প্রাপ্তির সময়

আবেদনকারীর আবেদনপত্র পাওয়ার পর যাচাই-বাছাইয়ের করে লাইসেন্স পাওয়ার যোগ্য হলে কমিশন সভায় লাইসেন্স প্রদানের বিষয় অনুমোদন হবার পর ৪৫ দিনের মধ্যে লাইসেন্স ইস্যু করা হয়।

কাজ শুরু হবে

খনিজ সম্পদ উন্নয়ন ব্যুরো

আবেদনের সময়

সারা বছর যেকোন সরকারী অফিস খোলার দিন।

দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

সচিব

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশন

ফোনঃ৯১৪০১২৫

সেবা না পেলে কার কাছে যাবেন

চেয়ারম্যান

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরী কমিশন

ফোনঃ ৮১৫৯০৬২

 

বিস্তারিত তথ্যের জন্য ভিজিট করুন:  http://bomd.gov.bd